On
ব্লগিং ক্যারিয়ার নিয়ে আপনি কতটুকু সিরিয়াস, হা আপনি সিরিয়াস কিন্তু আপনি বুজতে পারছেন না কীভাবে কি করবেন? এবং ব্লগিং এর ভবিষ্যৎ কি? আপনার মনে যদি এসকল প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আজকের পোস্ট টি আপনার জন্য...
আপনি ব্লগিং করতে চান আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ারের ভবিষ্যৎ কি

ব্লগিং কে নিজের ক্যারিয়ার হিসাবে বেছে নেওয়া টা কি ঠিক হবে ?

হা অবশ্যই ঠিক হবে, কারন এখনি ঠিক সময় আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ার কে বিল্ড আপ করার জন্য।কেননা দেখুন এখন থেকে আপনি ৫ বছর আগের কথা চিন্তা করুন, তখন কিন্তু ইন্টারনেট এর ব্যাবহার এতটা বেশি ছিল না, আর এখন ইন্টারনেট, কে না ব্যাবহার করে, তো যাই হোক আপনি যদি এখন চিন্তা করে থাকেন আপনি ব্লগিং করবেন তাহলে আমি বলবো আপনি একদম সঠিক সিধান্ত নিয়েছেন, দেখুন এখন এই সময় এর থেকে ভালো সময় আর পাবেন না, হা আমি ঠিক ই বলছি। আপনার মাথায় এমনও প্রশ্ন আসতে পারে এখন এই সময়ে তো অনেক বড় বড় ব্লগ আছে তাদের কাছে অনেক বেশি ভিজিটর আছে, বা তাদের ব্লগের একটা কমুইনিটি আছে, কিন্তু আমার তো নেই তাহলে আমি কীভাবে একটি ব্লগ করে সাকসেস হতে পারবো ? খুব সোজা হিসাব আপনি ওই যে বড় বড় ব্লগের কথা বলছেন বা ভাবছেন তার কাছেও কিন্তু এক সময় কিছুই ছিল না। তার কাছে এখন যা আছে সে কিন্তু সেটা আস্তে আস্তে পেয়েছে, এমন টা না যে ব্লগ আজকে করছে আর কালকে থেকে অনেক ভিজিটর আসা শুরু করে দিছে, তারপর তার ব্লগ অনেক বড় ব্লগ হয়ে গেছে। তো আপনিও পারবেন কিন্তু আপনাকে অবশ্যই সময় দিতে হবে, অপেক্ষা করতে হবে।

আপনি ব্লগিং ক্যারিয়ার নিয়ে কতটুকু সিরিয়াস

ব্লগিং করতে হলে, আপনার ভিতর সিরিয়াস নেস টা থাকতেই হবে, ব্লগিং করা শুরু করার পর আপনি দেখলেন আপনার ব্লগে ভিজিটর নাই, ভিজিটর আসছে না, তখন আপনি ব্লগিং করা ছেড়ে দিলেন। এমন টা যদি করেন তাহলে আপনি যতো ব্লগ করেন না কেন, আপনি একটাতেও সাকসেস হতে পারবেন না । ব্লগিং শুরু করতে হলে মনে করতে হবে আপনি এই কাজ টা কোন টাকা পয়সার জন্য করছেন না, আপনি সুধুই আপনার নিজের ভিতরে  থাকা নলেজ  শেয়ার করছেন। এবং কম করে ১ বছর টাকা পয়সা ইনকাম এর চিন্তা ভাবনা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতে হবে। আর আপনি যদি সত্যি ব্লগিং ক্যারিয়ার নিয়ে সিরিয়াস হয়ে থাকেন তাহলে আপনার কোন কিছুতেই বেগ পেতে হবে না, আপনি এমনিতেই পারবেন। আমি নিজে জানি ব্লগিং করবো বলা টা যতটা সহজ করাটা কিন্তু ঠিক তততাই কঠিন । কিছু দিন ব্লগে আর্টিকেল পাবলিশ করার পর এমন হয় যে তখন মনে হয় আমি এতো কিছু করছি, কিন্তু আমার তো কোন কিছুই হচ্ছে না, তাহলে আমি ব্লগিং করে কি করবো, আমি অন্য কিছু করি আর তারপর অন্য কিছু করতে চলে যাই তখন অন্য কিছুও করা হয় না সাথে ব্লগিং ও করা হয় না ফলাফল কোন কিছু থেকেই কিছুই করতে পারি না। দেখুন আমি খুব ইজি ভাবে সব কিছুই চিন্তা ভাবনা করি আর আমার নিজের অভিজ্ঞতা টাও অনেক দিনের , আপনি যদি ব্লগিং করতে চান তাইলে শুধু ব্লগিং নিয়েও থাকেন অন্য কিছু করতে গেলে আপনি ব্লগিং এ কিছু করতে পারবেন না। সাথে অন্য যে কাজ টি করতে যাচ্ছেন টাও পারবেন না। আপনি যা করবেন একটাই করুন এবং মন থেকে কাজ টি করুন তাহলে আপনি সফল হবেন ।

ব্লগিং কারিয়ারের ভবিষ্যৎ কি ??

লাখ টাকার প্রশ্ন ব্লগিং এর ভবিষ্যৎ কি ? এই প্রশ্ন টা আপনার মনে আসা টা খুবই স্বাভাবিক কেননা, এখন ভিডিও এর যুগ এখন কে বা আর্টিকেল পরতে চায় । আপনার যদি এমন টা মনে হয় তাহলে আমি বলবো আপনি সম্পূর্ণ ভুল ভাবছেন , আপনি জানেন কি পৃথিবীতে এখন যতো লোক ভিডিও দেখে তার থেকে অনেক বেশি মানুষ ব্লগের আর্টিকেল পরে, উদাহন  ঃ পৃথিবীতে প্রতি মাসে ভিডিও দেখা হয় ২২.৮ বিলিয়ন, আর প্রতিমাসে ব্লগের আর্টিকেল পরা হয় ৩৯.৫ বিলিয়ন। এবার আপনি নিজেই চিন্তা করে দেখুন। ব্লগিং আগেও যেমন ছিল এখন ও আছে, এবং ভবিষ্যতে ব্লগিং আরও বেশি পপুলার হবে । এই কথা টা আমি বলছি না, গুগল নিজেই জানিয়েছে যে ব্লগিং কখনো কোন দিন শেষ হবে না। ব্লগিং ছিল থাকবে এবং পরবর্তীতে ব্লগিং কে আরও উন্নত করা হবে, যাতে যারা ব্লগিং করছে বা ব্লগিং করবে তারা সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারে। সো চিন্তা করার কিছুই নাই, আপনি নির্দ্বিধায় ব্লগিং করা শুরু করে দিতে পারেন, আর আপনি যদি ব্লগিং ক্যারিয়ার বেছে থাকেন, তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ ও ভালো। তো আমার মনে হয় না আপনার মনে এখন ব্লগিং ক্যারিয়ার নিয়ে আর কোন প্রশ্ন আছে ? তারপরেও যদি আপনার মনে ব্লগিং নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি প্রশ্ন করতে পারেন, আমি আপনার প্রশ্নের উত্তর দিব।। টাটা, বাই বাই 

Click to comment