On
বেক্তিগত ভাবে বলতে গেলে আমি নিজেও অনেক কনফিউসনে ছিলাম যে কোনটা বেটার ব্লগিং নাকি ইউটিউব । তো আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো আপনার জন্য কোন প্লাটফরম টি বেটার, ব্লগিং নাকি ইউটিউব ।


প্রথমে একটু ব্লগিং এবং ইউটিউব সম্পর্কে আলোচনা করে নেওয়া যাক ।

যদি আপনার ভিতর কিছু করার ট্যালেন্ট থাকে তাহলে আপনি অবশ্যই সাকসেস হতে পারবেন সে আপনি ব্লগিং করুন বা ইউটিউব করুন ।

এখন কথা বলা যাক ব্লগিং নিয়ে, ব্লগিং হোল একটি লেখা লেখি করার প্লাটফরম, ব্লগিং করা হোল আপনি কোন কিছু একটা বুঝাবেন, কিন্তু সেই বুঝানটা আপনাকে লেখার মাধ্যমে বুঝাতে হবে। যেমন ভাবে আমি আপনাকে বুঝিয়ে বলছি আপনার জন্য কোনটি বেষ্ট হবে ব্লগিং vs ইউটিউব ।
আর ইউটিউব এ কিছু বলা বা বুঝানটা আমার মনে ব্লগিং করার থেকে অনেক টা সহজ কারন আপনি সরাসরি ভিডিও এর মাধ্যমে আপনি আপনার ভিসিটর দের বুঝিয়ে দিতে পারবেন খুবই সহজে, কিন্তু সেই একই কাজ আপনি যদি লিখে বুঝাতে যান তাহলে বাপার টা কিছুটা কষ্টসাধ্য হতে পারে ।

আপনার জন্য কোনটি বেস্ট ব্লগিং নাকি ইউটিউব 

দেখুন এটি নির্ভর করে সম্পূর্ণ আপনার উপর এবং আপনার কনটেন্ট এর উপর, যেমন আপনার যদি ভিডিও বানিয়ে টেক বিষয়ে শেখানোর আগ্রহ থাকে তাহলে আপনি ইউটিউব করতে পারেন, আর আপনার যদি ভিডিও বানাতে প্রবলেম হয় বা আপনার লজ্জা করে তাহলে আপনি লেখা লিখি করতে পারেন। মানে ব্লগিং করতে পারেন।

আপনি কোনটিতে সাকসেস পাবেন তাড়াতাড়ি

আপনার কাছে যদি ভালো কনটেন্ট থাকে তাহলে আপনি যে প্লাটফরম এ গিয়েই কাজ করুন না কেন, আপনি ভালো রকম রেসপন্স পাবেন । তবে আপনার কনটেন্ট যদি দুর্বল হয় আর আপনি চাচ্ছেন আপনি যা কিছু একটা করলেন এবং সাকসেস আপনার হাতের মুঠোয় চলে আসলো তাহলে আপনি কখনই সাকসেস হতে পারবেন না । আপনার কাছে ভালো কনটেন্ট থাকলে সাকসেস এমনিতেও আপনার কাছে চলে আসবে।

এখন এই প্রশ্ন টা কম বেশি সবার মাথায়ই আসে, আপনি ব্লগিং অথবা ইউটিউব এ কি করবেন ।

দেখুন আমি জানি এই প্রশ্ন টা আপনার মাথায় ও ঘুরা ঘুরি করে, কিন্তু আপনি এই প্রশ্ন টা কাকে করবেন। প্রশ্ন টা হোল আপনি যে টপিক নিয়ে কাজ করবেন সেই টপিক টা নিয়ে অলরেডি অনেক বড় বড় ইয়উটুবার বা ব্লগার আছে তাহলে আপনি কি করবেন আপনি কি ব্লগিং বা ইয়উটুবিং করতে পারবেন । উত্তর হা আপনি অবশ্যই পারবেন কারন আপনার মতো এই পৃথিবীতে আর কেউ নেই আপনি যেটা করবেন সেটা শুধু আপনারই তৈরি হবে। আপনার থেকে অনেক বড় বড় ইয়উটুবার বা প্র ব্লগার আছে টাতে কি হয়েছে । আপনি আপনার মতো করে কাজ টি করবেন । তবে এই ভাবলে চলবে না যে এই টপিক এ তো অনেক বড় বড় সাইট আছে তাদের মাঝে আমি কি পারবো। এসব না ভেবে ঝাপিয়ে পড়ুন এবং আপনি আপনার মতো করে কনটেন্ট বানান দেখবেন কখন যে আপনার লাক ফেভার করছে আপনি নিজেও বুজতে পারবেন না । 

কোনটিতে আপনি বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন 

ইনকাম এর কথায় যদি আসি তাহলে ব্লগিং বেস্ট কারন আপনি ইউটিউব থেকে ব্লগিং এ ১০ গুন বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন । ইউটিউব এ হয় কি আপনার জন্য একটা আলাদা ফেম তৈরি হয় বা বলতে পারেন ছেলিব্রিটি টাইপ এর । মনে করুন আপনার ইউটিউব এ ১৫ হাজার ভিউ হলে আপনি কতো পাবেন বড় জোর এক ডলার আর অন্য দিকে মানে ব্লগিং এ আপনার যদি ১০ হাজার পেজ ভিউ হয় তাহলে আপনি মিনিমাম ১৫ ডলার পাবেন । সর্বশেষ আপনি আগে নিজে বুঝুন এবং নিজে নিজে সিধান্ত নিন যে আপনার জন্য কোন প্লাটফরম টি বেস্ট তারপর আপনি কনটেন্ট বানাতে থাকুন
দেখবেন সাকসেস পেয়ে যাবেন । 

Click to comment